দৃষ্টি আকর্ষণঃ
আমাদের ভূবনে স্বাগতম। আপনাদের সহযোগিতাই আমাদের পাথেয়।
সংবাদ শিরোনাম
মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ও উপমন্ত্রী শিক্ষা জাতীয়করণ প্রসঙ্গে সংসদে আপনাদের বক্তব্য চাই করোনা বৃত্তান্ত।। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু এবং আক্রান্ত শনাক্ত দু’টোই বেড়েছে করোনার গ্যাঁড়াকলে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা।। বিপর্যস্ত শিক্ষাপঞ্জি চরম বিপাকে বেসরকারি শিক্ষকরা সমৃদ্ধ জাতি গঠনে শিক্ষা ও শিক্ষকবান্ধব পরিকল্পনা জরুরি শিক্ষকতা পেশার মর্যাদা তলানীতে! আমি শিক্ষক মানুষ গড়ার কারিগর এ নহে মোর অপরাধ মোবাইল গেমসঃ একটি ভয়াবহ ব্যাধি তিতাসে বাংলাদেশ শিক্ষা সেবা ফাউন্ডেশনের বৃক্ষ রোপণ এ বছরও হজ্বযাত্রী পাঠানো বন্ধ থাকবে- সংসদে অর্থমন্ত্রী মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ও উপমন্ত্রী শিক্ষা জাতীয়করণে প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দের উদ্যোগ নিন ৫০ বছরে ৭৮৬ কোটি থেকে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ হাজার কোটি টাকার বাজেট
৫০ বছরে ৭৮৬ কোটি থেকে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ হাজার কোটি টাকার বাজেট

৫০ বছরে ৭৮৬ কোটি থেকে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ হাজার কোটি টাকার বাজেট

ছবিঃ সংগৃহিত

কালপুরুষ রিপোর্ট।। ২০২১ সালের ২৬ মার্চ উদযাপিত হলো স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী। ১৯৭১ থেকে ২০২১ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ৫০ বছরে ৫০টি বাজেট পেশ করা হলো। স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশের প্রথম বাজেটের আকার ছিল ৭৮৬ কোটি টাকা। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের টানা তৃতীয় মেয়াদের তৃতীয় বাজেটের আকার দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ হাজার কোটি টাকা।
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল আজ ৩ জুন, বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০২১-২-২২ অর্থবছরের জন্য ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ হাজার কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট পেশ করেছেন। করোনাকালীন জীবন ও জীবিকা, স্বাস্থ্য সুরক্ষা, কর্মসংস্থান, ব্যবসা-বাণিজ্য, বিনিয়োগ ও কৃষিখাতকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেছেন তিনি।
প্রস্তাবিত বাজেটের আকার ৫০ বছরে সর্বোচ্চ ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ হাজার কোটি টাকা হলেও বাজেট ঘাটতি ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। এ ঘাটতি অর্থায়নে বৈদেশিক উৎস থেকে নেয়া হবে ১ লাখ ১ হাজার ২২৮ কোটি টাকা। অভ্যন্তরীণ খাত থেকে ঋণ নেয়া হবে ১ লাখ ১৩ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা। ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়া হবে ৭৬ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা। বাজেটে প্রবৃদ্ধির হার ধরা হয়েছে ৭ দশমিক ২ শতাংশ। এছাড়া মূল্যস্ফীতির লক্ষ্যমাত্রা ৫ দশমিক ৩ শতাংশ। বাজেটের মোট রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৮৯ হাজার কোটি টাকা। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে আসবে ৩ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকা। রাজস্ব বোর্ড বহির্ভূত আয় ধরা হয়েছে ১৬ হাজার কোটি টাকা। এছাড়া কর বহির্ভূত খাতে রাজস্ব আসবে ৪৩ হাজার কোটি টাকা।
বাজেটে সামাজিক অবকাঠামো খাতে ১ লাখ ৭০ হাজার ৫১০ কোটি টাকা বরাদ্দ ও মানবসম্পদ খাতে ১ লাখ ৫৫ হাজার ৮৪৭ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব রাখা হয়।সামাজিক নিরাপত্তা খাতে বরাদ্দের প্রস্তাব রাখা হয় ১ লাখ ৭ হাজার ৬১৪ কোটি টাকা; কৃষি ও পল্লী উন্নয়ন খাতে ৭৪ হাজার ১০২ কোটি টাকা এবং যোগাযোগ ও অবকাঠামো খাতে ৬৯ হাজার ৪৭৪ কোটি টাকা। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ২৭ হাজার ৪৮৪ কোটি টাকার প্রস্তাব রাখা হয়। করোনা মোকাবেলায় ১০ হাজার কোটি টাকা থোক বরাদ্দ; স্বাস্থ্যখাতে ৩২ হাজার ৭৩১ কোটি টাকা এবং স্বাস্থ্য শিক্ষা ও প্রযুক্তি খাতের গবেষণায় ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে বাজেটে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষায় ২৬ হাজার ৩১১ কোটি টাকা; মাধমিক ও উচ্চ শিক্ষায় ৩৬ হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষায় ৯ হাজার ১৫৪ কোটি টাকা। স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন খাতে ৪১ হাজার ১০ কোটি টাকা ও কৃষিখাতে ২৪ হাজার ৯৪৮ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব রাখা হয়।
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের জন্য ৪ হাজার ১৯১ কোটি টাকা; তৈরি পোশাক খাতে ১ শতাংশ হারে রপ্তানি প্রণোদনা অব্যাহত রাখার প্রস্তাব করা হয়। পরিচালনসহ অন্যান্য খাতে মোট বরাদ্দ ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৭৮ হাজার ৩৫৭ কোটি টাকা।
২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ খাতে বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেটে করোনা সংশ্লিষ্ট প্রকল্পগুলোকে অগ্রাধিকার দিয়ে স্বাস্থ্য খাতে ৩২ হাজার ৭৩১ কোটি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। গত অর্থবছরের স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ ছিল ২৯ হাজার ২৪৫ কোটি টাকা। আগের অর্থবছরের তুলনায় এবার তিন হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

এক নজরে বাজেট (২০২১-২০২২):
বাজেটের আকার: ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা
রাজস্ব আয় প্রাক্কলন: ৩ লাখ ৮৯ হাজার কোটি টাকা
ঘাটতি: ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা
এডিপিতে বরাদ্দ: ২ লাখ ২৫ হাজার ৩২৪ কোটি টাকা
প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা: ৭ দশমিক ২ শতাংশ
মূল্যস্ফীতির লক্ষ্যমাত্রা: ৫ দশমিক ৩ শতাংশ
ঘাটতি অর্থায়ন: ক) অভ্যন্তরীণ উৎস: ১ লাখ ১৩ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা এবং i) ব্যাংক ব্যবস্থা থেকে: ৭৬ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা এবং ii) সঞ্চয়পত্র ও অন্যান্য ব্যাংক-বহির্ভূত খাত থেকে: ৩৭ হাজার ১ কোটি টাকা
খ) বৈদেশিক উৎস: ১ লাখ ১ হাজার ২২৮ কোটি টাকা
শিক্ষা খাতে বরাদ্দ: শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য বরাদ্দ ৭১ হাজার ৯৫১ কোটি টাকা
ক) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ: ৩৬ হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা খ) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়: ২৬ হাজার ৩১১
করমুক্ত বার্ষিক আয়সীমা: ৩ লাখ টাকা
করোনা মোকাবিলায় বরাদ্দ: ১০ হাজার কোটি টাকা

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 www.kalpurushnet.com