দৃষ্টি আকর্ষণঃ
আমাদের ভূবনে স্বাগতম। আপনাদের সহযোগিতাই আমাদের পাথেয়।
সরকার সমুদ্রসীমা রক্ষার পাশাপাশি সমুদ্রসম্পদ আহরণের মাধ্যমে দেশকে সমৃদ্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে-প্রধানমন্ত্রী

সরকার সমুদ্রসীমা রক্ষার পাশাপাশি সমুদ্রসম্পদ আহরণের মাধ্যমে দেশকে সমৃদ্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে-প্রধানমন্ত্রী

ছবিঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (সংগৃহিত)

কালপুরুষ রিপোর্ট।। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার সমুদ্রসীমা রক্ষার পাশাপাশি সমুদ্রসম্পদ আহরণের মাধ্যমে দেশকে সমৃদ্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে। সমুদ্রসম্পদ অর্থনীতিতে অবদান রাখতে পারে। আমাদের সে সুযোগও রয়েছে। সেগুলো ব্যবহার করার লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সমুদ্রসীমা ও সম্পদ রক্ষায় নৌবাহিনীর প্রশংসা করে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের নৌবাহিনীর সদস্যরা লোকচক্ষুর আড়ালে থেকে প্রতিনিয়ত প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা থেকে শুরু করে সমুদ্র এলাকার নিরাপত্তাবিধান করে যাচ্ছেন। এটা প্রশংসার দাবি রাখে।
৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে নৌবাহিনীর জাহাজ ‘বানৌজা ওমর ফারুক’, ‘আবু উবাইদাহ’, ‘প্রত্যাশা’, ‘দর্শক’ ও ‘তল্লাশি’র কমিশনিং প্রদানকালে এ কথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের সময় আমাদের নৌবাহিনী যথাযথ ভূমিকা রেখেছে। যে কোনো প্রাকতিক দুর্যোগেও তারা মানুষের পাশে দাঁড়ায় এবং যথাযথ ভূমিকা রাখে। এসময় প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনীর প্রশংসা করে তাঁর বক্তব্যে শক্তিশালী আধুনিক সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে বলেন, আমরা যুদ্ধ চাই না। কিন্তু যদি বাংলাদেশ কখনো বহিঃশত্রুর আক্রমণ দ্বারা আক্রান্ত হয় তা মোকাবিলা করবার মতো সক্ষমতা আমরা অর্জন করতে চাই। তাই আমরা সমুদ্রসীমা রক্ষার জন্য নৌবাহিনীকে শক্তিশালী করে গড়ে তুলছি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, নৌবাহিনীকে আধুনিক, দক্ষ, শক্তিশালী বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়ন, যুদ্ধজাহাজ সংগ্রহ এবং বিদ্যমান জাহাজসমূহের অপারেশনাল সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য আমরা বাস্তবমুখী পরিকল্পনা নিই। আমরা নৌবাহিনীতে বর্তমান প্রজন্মের উন্নত সাবমেরিন, যুদ্ধজাহাজ, মেরিটাইম প্যাট্রল এয়ারক্র্যাফট, হেলিকপ্টারসহ আধুনিক সরঞ্জাম সংযোজন করেছি। এর মাধ্যমে একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা একটি ত্রিমাত্রিক নৌবাহিনী গঠনের প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছি। আজ যে জাহাজগুলো কমিশনিং হলো সেগুলো আমাদের নৌবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করবে। নৌবাহিনীর অগ্রযাত্রা আরও একধাপ এগিয়ে গেল। তিনি বলেন, আজ আমরা পাঁচটি অত্যাধুনিক যুদ্ধজাহাজ নৌবাহিনীতে সংযোজন করতে সক্ষম হলাম।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 www.kalpurushnet.com