দৃষ্টি আকর্ষণঃ
আমাদের ভূবনে স্বাগতম। আপনাদের সহযোগিতাই আমাদের পাথেয়।
মুরাদনগরের বাংগরায় শেখ রমিজ উদ্দীন ফাউন্ডেশন’র খাদ্য ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ

মুরাদনগরের বাংগরায় শেখ রমিজ উদ্দীন ফাউন্ডেশন’র খাদ্য ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ

ছবিঃ ম. শাহানুর আলম খান, মুরাদনগর

 ম.শাহানূর আলম খাঁন, মুরাদনগর প্রতিনিধি, কুমিল্লা।। মানুষ মানুষের জন্য – এ ম্যাক্সিমকে উপজীব্য করে করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাংগরার শেখ রমিজ উদদীন ফাউন্ডেশন।

১২ মে, ২০২০ মঙ্গলবার দুপুর ২ টা থেকে শুরু করে রাতভর ১১৫০ পরিবারের মধ্যে চলে বিতরণ কাজ। করোনাভাইরাসের প্রভাবে সারা দেশের ন্যায় মুরাদনগরেও চলছে লকডাউন নামক ঘরবন্দী থাকা। ফলে, কর্মহীন হয়ে পড়েছে অসংখ্য মানুষ। শঙ্কায় আর হতাশায় কাটছে তাদের প্রতিটি মূহুর্ত। বাংগরার শেখ রমিজ উদ্দীন ফাউন্ডেশন খাদ্য ও ঈদসামগ্রী নিয়ে এ অসহায় মূহুর্তে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন উদারচিত্তে।

খাদ্য ও ঈদসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে শেখ রমিজ উদ্দীন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শেখ সগির বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও অসংখ্য মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে । আমাদের বাংগরা এলাকায় কর্মহীনরা  ঈদকে সামনে রেখে খুব হতাশায় দিন যাপন করছে। তাই, ‘শেখ রমিজ উদ্দীন ফাউন্ডেশন’ এর পক্ষ থেকে আমাদের যতটুকু সামর্থ্য আছে তা নিয়েই তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। সঙ্কটকালীন সময়গুলোতে অতীতেও তাদের পাশে ছিলাম, এখনো আছি, ভবিষ্যতেও থাকব, ইনশাআল্লাহ।  সমাজের সামর্থবানদেরও উদাত্ত আাহ্বান করছি – আপনারা সামর্থ্য অনুসারে তাদের পাশে দাঁড়ান। কিছুটা হলেও তাদের কষ্ট লাঘব হবে।’

ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামীলীগ নেতা শেখ জাকির হোসেন জানান, ‘মানুষের পাশে দাঁড়াতে মানবতার মা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় অনুপ্রাণিত হয়ে বাবার নামে করা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে আমরাও অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছি। সামনে ঈদ। কর্মহীন মানুষগুলোর হাতে টাকা নেই। তাই বাংগরা ও আশপাশের অসহায়, সুবিধাবঞ্চিত ও কর্মহীনদের হাতে খাদ্য ও ঈদসামগ্রী তোলে দিয়ে তাদের অসময়ের কষ্ট ও ঈদের আনন্দের অংশীদার হতে চাই।’

ফাউন্ডেশনের প্রবাসী সদস্য শেখ আমজাদ, শেখ হায়দার, শেখ আহমদ, শেখ শোয়েব আক্তার যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ‘এ দুর্বিষহ সময়ে অসহায় ও কর্মহীনরা যাতে ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত না হয় তা বিবেচনা করেই  বাংগরা ও আশপাশের এলাকায় ঈদসামগ্রী বিতরণ করছি। বিপদে মানুষই মানুষের পাশে দাঁড়াবে -এটাকে আমরা মনেপ্রণে বিশ্বাস করি’। আটা, সেমাই,চিনি,দুধ, খেজুর ও কিসমিসসহ মোট ৬ রকমের খাদ্য ও ঈদসামগ্রী বিতরণ করা হয়। প্রথমে ৯০০ জনের তালিকা করা হলেও শেষ পর্যন্ত তা বেড়ে দাঁড়ায় ১১৫০ জনের ও অধিক। এসব খাদ্যসামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয় গ্রামের স্বেচ্ছাসেবী তরুণ বাবু, পলাশ, মোহন কাউসার, গিয়াস মোল্লা,সজীব,জিলানী,সুবিল, দেলোয়ার, কবির, ও মাহবুব। এসময় ফাউন্ডেশনের সদস্য শেখ কবির, শেখ মনির, শেখ মোশারফ, শেখ হোসেন, শেখ হাসান, শেখ আকরাম, শেখ হনুফা, শেখ আঁখি, শেখ শামীমা  সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 www.kalpurushnet.com