দৃষ্টি আকর্ষণঃ
আমাদের ভূবনে স্বাগতম। আপনাদের সহযোগিতাই আমাদের পাথেয়।
সংবাদ শিরোনাম
জাতীয়করণ আমার অধিকার — মোহাম্মদ আলাউদ্দিন মাস্টার বর্তমান সংসদের প্রায় এক তৃতীয়াংশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন কারাগারের রোজনামচা ও কাউয়া সমাচার সংগঠন যার যার জাতীয়করণ সবার।। প্রয়োজন লেজুরবৃত্তি পরিহার ভাগ্য সুপ্রসন্ন বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বারদের জীবন-জীবিকা মখোমুখি! এ যেন শ্যাম রাখি না কুল রাখি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বেসরকারি শিক্ষকের মুখে হাসি নেই।। অনেকেই নিরবে চোখের জল ফেলছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী করোনার থাবায় বিপর্যস্ত বেসরকারি শিক্ষকরা।। আপনার সুদৃষ্টি কামনা করছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভালো নেই মানুষ গড়ার কারিগর বেসরকারি শিক্ষকরা! বাশিস এবং নজরুল ইসলাম রনি জাতীয়করণ প্রশ্নে আপোষহীন
বাংলাদেশকে আজ সারাবিশ্ব সমীহ করে … অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল

বাংলাদেশকে আজ সারাবিশ্ব সমীহ করে … অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল

হালিম সৈকত,কুমিল্লা।। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী ৪ দিনের কুমিল্লা সফরের তৃতীয় দিনে আজকে আকস্মিক অধ্যক্ষ আবুল কালাম মজুমদার মহিলা কলেজ পরিদর্শন করেছেন। ১৫ ডিসেম্বর রবিবার বেলা ২.১৫ মিনিটে তিনি কলেজ প্রাঙ্গণে এসে উপস্থিত হন। এ সময় তিনি লালমাই উপজেলার বিজয় দিবসের জাতীয় অনুষ্ঠানের সার্বিক খোঁজ খবর নেন এবং ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন,বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে আজ বাংলাদেশ বিশ্বের দরবারে একটি মর্যাদাশীল দেশ। এক সময় বাংলাদেশকে বিশ্বের কেউ চিনতো না এবং প্রবাসীরা বাংলাদেশের পরিচয় দিতে অস্বস্থিবোধ করত। কিন্তু আজ গর্ববোধ করে সবাই বলেন, আমরা বাঙালি, বাংলাদেশী। এটা সম্ভব হয়েছে কেবল জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য। তিনি আজ বাংলাদেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে মর্যাদার আসনে নিয়ে গেছেন। ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা হব উন্নত সমৃদ্ধশালী রাষ্ট্র। আর আমাদেরকে বেকার থাকতে হবে না। বেকারত্ব দূর করার জন্য কাজ করছে সরকার। চাকরির জন্য অপেক্ষা করতে হবে না। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে। তাই বাংলাদেশকে আজ বিশ্ববাসী সমীহ করে। 

বিশেষ করে ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, অধ্যক্ষ আবুল কালাম মজুমদার মহিলা কলেজকে ভবিষ্যতে মার্স্টাসে উন্নীত করা হবে।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কলেজ গভর্নিং বডির অন্যতম সদস্য ও লালমাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম, কলেজের অধ্যক্ষ মো. কামরুল আহসান, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মো. আমির হোসেন, রসায়নের প্রভাষক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, ইংরেজির প্রভাষক আবু ইসহাক মজুমদার, পরিসংখ্যানের প্রভাষক মো. আমির হোসেন, শরীর চর্চার শিক্ষক সীমা রানী দাস, ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক মো. আবদুল হালিম, মো. দিদারুল আলম, মশিউর রহমান শিপন, সমাজকর্ম বিভাগের প্রভাষক সাইদুল ইসলাম শাহিন, আবদুল মোমিন, হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক তারেক মাসুদ ও সুমন চন্দ্র দেবনাথ প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019 www.kalpurushnet.com